শাওয়াল মাসের রোজা রাখার নিয়ম । ছয় রোজা রাখার নিয়ম

রমজান মাসের পরে সবথেকে বেশি সাওয়াব ও ফজিলত পূর্ণ রোজা হচ্ছে শাওয়াল মাসে। তাই সবার শাওয়াল মাসের রোজা রাখার নিয়ম জানা জরুরি।

প্রিয় পাঠক, স্বাগত Dainik Kantha এর আজকের পোষ্ট “শাওয়াল মাসের রোজা রাখার নিয়ম অর্থাৎ ছয় রোজা রাখার নিয়ম” এ।

আরও পড়ুনঃ শাওয়ালের ছয় রোজা রাখার নিয়ম । ছয় রোজার নিয়ত

আজকের পোষ্টে আমরা ছয় রোজা বা শাওয়াল মাসের রোজার নিয়ত, শাওয়ালের রোজা রাখার নিয়ম, শাওয়াল মাসের রোজার সময়সূচি ২০২৪ এবং শাওয়াল মাসের ফজিলত এবং আমল সম্পর্কে জানবো।

শাওয়াল মাসের রোজা কি

আরবি ১২ মাসের মধ্যে নবম মাস রমজান। আর রমজানের মাসের পরের মাশ শাওয়াল মাস। ঈদুল ফিতরের দিন থেকেই শাওয়াল মাসের শুরু হয়।

হাদিসে এসেছে যে, কেউ যদি রমজানে ৩০ টি রোজা রাখে এবং শাওয়াল মাসের যেকোনো ৬ দিনে ৬ টি রোজা রাখে ঐ ব্যক্তি তাহলে সারা বছর রোজা রাখার সাওয়াব পেল। -(সহিহ মুসলিম থেকে)

এজন্য রমজান মাসের ৩০ রোজা শেষে ইদুল ফিতর বা রমজানের ঈদ আসে।

আর এই ঈদের পর শাওয়াল মাসের মধ্যে ৬ টি রোজা রাখা হয়।

আরও পড়ুনঃ  রোজার নিয়ত ও ইফতারের দোয়া বাংলা । রোজার দোয়া

এই রোজাকেই শাওয়াল মাসের রোজা বলে। আর শাওয়াল মাসে ৬ টি রোজা রাখার  কথা বলা হয়েছে তাই একে ছয় রোজাও বলা হয়।

তবে, আপনি চাইলে শাওয়াল মাসের সম্পূর্ণ সময় ধরে রোজা রাখতে পারেন। শুধু মাত্র রমজানের নিষিদ্ধ দিনগুলো ব্যতিত।

কিন্তু আপনি রমজান মাসের সবকয়টি রোজা এবং শাওয়াল মাসের ছয়টি রোজা রাখলেই আপনি সারা বছর রোজা রাখার সাওয়াব পাবেন।

শাওয়াল মাসের রোজার নিয়ত । শাওয়ালের ৬ রোজার নিয়ত

শাওয়াল মাসের রোজার নিয়ত এর ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য যে, কোনও নামাজ বা রোজায় মুখে উচ্চারণ করে নিয়ত করার প্রয়োজন নাই।

আপনি রোজা রাখার উদ্দেশ্যে সেহরি তৈরি করছেন, সময় মতো সেহরি খেতে উঠছেন এটাই আপনার রোজার নিয়ত হয়ে যায়।

আল্লাহ সকল বিষয়ে অবহিত। আল্লাহ অন্তর্যামী। এরপরেও অনেকে শাওয়াল মাসের রোজা রাখার নিয়ত পড়তে চান।

তাদের জন্য বলছি যে, আপনি বাংলায় এভাবে আল্লাহর কাছে দোয়াটি করতে পারেন যে,

“হে আল্লাহ, ১ মাস ফরজ রোজার পরে আমি তোমার খুশির জন্য  শাওয়াল মাসের রোজা রাখার উদ্দেশ্যে সেহরি খেলাম। নিশ্চয়ই আপনি সকল বিষয়ে সম্মক অবহিত”।

আরও পড়ুনঃ তারাবি নামাজের নিয়ত । তারাবির নামাজের নিয়ম কানুন জেনে নিন

অনেকে মনে করেন শাওয়াল মাসের রোজার নিয়ত বা শাওয়ালের ৬ রোজার নিয়ত আরবিতে না করে বাংলায় করা যাবে কি না। 

ভাই, আরবি বাংলা একটি ভাষা মাত্র। আল্লাহ সব বিষয়ে অবহিত। আপনি শাওয়াল মাসে রোজা রাখলেই হবে।

এই রোজা রাখার জন্য আলাদা ভাবে কোনও নিয়ত করতে হবে না।

শাওয়াল মাসের রোজা রাখার নিয়ম

খুব সহজ ভাবে যদি আপনাকে বলতে চাই যে শাওয়াল মাসের রোজা রাখার নিয়ম বা ছয় রোজা রাখার নিয়ম কি তাহলে বলবো,

রমজান মাসে যেভাবে রোজা রাখছেন ঠিক একই ভাবে শাওয়াল মাসের রোজা রাখতে হবে।

সেহরি খেতে হবে সময় মতো। এবং সময় মতো ইফতারি করতে হবে। শাওয়ালের রোজা বলে রমজানের রোজার থেকে কোনও ব্যতিক্রম নয়।

তবে শাওয়ালের রোজা এবং রমজান মাসের রোজার মধ্যে কিছু পার্থক্য আছে।

আরও পড়ুনঃ  রোজা ভঙ্গের কারণ কয়টি ও কি কি । কি কি কারণে রোজা মাকরুহ হয়

শাওয়াল মাসে আপনাকে কি কি করতে হবে এবং কি কি করতে হবে না নিচের তালিকা থেকে দেখে নেওয়া যাক।

শাওয়াল মাসের রোজা বা ছয় রোজায়…

  • সম্পূর্ণ শাওয়াল মাসের মাত্র ৬ টি রোজা রাখতে হবে।
  • তারাবি পড়ার নিয়ম নেই, অর্থাৎ তারাবি পড়া লাগবে না।
  • রমজানের রোজার মতো করে রোজা রাখতে হবে।

আরও পড়ুনঃ শবে কদরের নামাজের নিয়ম । শবে কদরের নামাজের নিয়ত (বিস্তারিত)

এছাড়া আপনি স্বাভাবিক ভাবেই শাওয়াল মাসের রোজা রাখতে পারেন। এক মাসে মাত্র ৬ টি রোজা রাখতে হবে।

কিন্তু আপনি যদি অনেক বেশী গ্যাপ দিয়ে রোজা রাখতে চান তাহলে সেটা আপনার জন্য কষ্টের হবে।

তাই নিয়ম অনুযায়ী, অর্থাৎ আপনি প্রয়োজনে এক দিন দুই দিন পর পর করে হলে ৬ টি রোজা রাখার চেষ্টা করুন। এবং ইদুল ফিতরের পর পর ই রোজা গুলো রাখার চেষ্টা করুন।

শাওয়ালের ছয় রোজা বা ছয় রোজার ফজিলত অনেক। এজন্য এই রোজা রাখা একজন রোজাদারের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ।

তাহলে জেনে নিন শাওয়াল মাসের আমল ও ফজিলত জেনে নিন।

শাওয়াল মাসের আমল ও ফজিলত

প্রিয় পাঠক, এক বছরে মোট ৩৬৫ দিন। আপনি যদি ৬ টা দিন অতিরিক্ত রোজা রেখে গোটা একবছর তথা ৩৬৫ রোজার সমান সাওয়াব পান তাহলে কেমন হবে?

হ্যাঁ। শাওয়াল মাসের রোজা সম্পর্কে হাদিস হচ্ছে, “কোনও ব্যক্তি যদি রমজানের ৩০ টি রোজা রাখে এবং শাওয়াল মাসে৬ টি রোজা রাখে সে যেন সারা বছর রোজা রাখলো”।

আরও পড়ুনঃ সূরা তারাবি পড়ার নিয়ম । সূরা তারাবির নামাজের নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত

এবার নিঃসন্দেহে বুঝতে পারছেন শাওয়াল মাসের রমজানের ফজিলত কতটা গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়াও আরও একটি বিষয় হচ্ছে যে,

যে ব্যক্তির রমজানের রোজা কবুল হয়েছে তাকে শাল মাসের রোজা পালনের জন্য আল্লাহ হেদায়াত দিবেন।

যা থেকে আপনি বুঝে নিতে পারবেন রমজান মাসে আপনার ইবাদত আপনার রমজান আল্লাহর কাছে কবুল হয়েছে কি না।

আশা করছি শাওয়াল মাসের আমল ও ফজিলত অর্থাৎ শাওয়াল মাসের ছয় রোজার ফজিলত সম্পর্কে জানতে এবং বুঝতে পারছেন।

শাওয়াল মাসের রোজা কখন হয়

প্রিয় পাঠক, আরবি রমজান মাসের পরেই শাওয়াল মাস হয়। শাওয়াল মাসে ৬ টি রোজা আপনি গোটা শাওয়াল মাসের মধ্যে যেকোনো ছয় দিনে সম্পন্ন করতে পারেন।

অনেকে জানতে চান শাওয়াল মাসের রোজার সময়সূচি ২০২৩ সম্পর্কে। প্রকৃত অর্থে আপনি শাওয়াল মাস অর্থাৎ ইফুল ফিতরের পরের দিন থেকেই শাওয়ালের রোজা রাখতে পারবেন।

আরও পড়ুনঃ  তারাবির নামাজের মোনাজাত বাংলা অর্থ সহ ( চার রাকাতের দোয়া সহ)

ফজরের আজানের সময় থেকে ২ থেকে ৫ মিনিট কম সেহরির সময় ধরে এবং মাগরিবের আজানের সময়কে ইফতারির সময় ধরে আপনি শাওয়াল মাসের ৬ টি রোজা সম্পন্ন করতে পারবেন।

এছাড়াও আপনি অনলাইনের মাধ্যমে শাওয়াল মাসের রোজার সময়সূচি ২০২৩ অর্থাৎ সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি থেকে দেখে নিতে পারেন।

শাওয়াল মাস সম্পর্কিত প্রশ্ন উত্তর

শাওয়াল মাসে কি বিয়ে করা সুন্নত? 

হ্যাঁ। শাওয়াল মাসে বিয়ে করা সুন্নত। শুধু তাই ই নয়, বরং শুক্রবারে বিয়ে করাও সুন্নত।

শাওয়াল মাসের রোজার ফজিলত কি ?

কেউ যদি রমজানের ৩০ টি রোজা রাখে এবং শাওয়াল মাসে ৬ টি রোজা রাখে তাহলে সে সারা বছর রোজা রাখা সাওয়াব পাবেন।

শাওয়াল মাসের রোজা রাখা কি ফরজ?

না। শাওয়াল মাসে ছয়তি রোজা রাখা সুন্নত।

শাওয়াল মাস ইংরেজি কোন মাস এ হয়ে থাকে?

শাওয়াল মাস আরবি বা ইসলামী বরস পুঞ্জির দশম মাস। ইংরেজি মাসের এপ্রিল এবং মে মাস উরে শাওয়াল মাস হয়ে থাকে। তবে এটি পরিবর্তিত।

শাওয়াল মাস কত দিনে হয়ে থাকে?

শাওয়াল মাস ২৯ এবং ৩০ দিনে হয়ে থাকে। মূলত আরবি মাস শেষ এবং শুরু হয় চাঁদ দেখার উপরে। তাই ১ দিন কম বেশী হয়। ২৯ কিংবা ৩০ দিনেই শাওয়াল মাস হয়ে থাকে।

শাওয়াল মাসে ৬ টি রোজা আদায় করা কি?

শাওয়াল মাসের ৬ টি রোজা আদায় করা সুন্নত।

শাওয়াল মাসের রোজা সম্পর্কিত সর্বশেষ

প্রিয় পাঠক, আজকের পোষ্টে আমরা শাওয়াল মাসের রোজা রাখা নিয়ম অর্থাৎ ৬ রোজা রাখার নিয়ম সম্পর্কে জেনেছি।

এছাড়াও শাওয়ালের ৬ রোজার নিয়ত এবং শাওয়ালের ছয় রোজা সম্পর্কিত সকল তথ্য জেনেছি।

আরও পড়ুনঃ  নামাজের নিষিদ্ধ সময় সমূহ জেনে নিন (হাদিসের আলোকে)

আশা করছি এই পোস্ট থেকে শাওয়াল মাসের রমজানের সকল তথ্য সম্পর্কে এই পোস্ট থেকে জানতে পেরেছেন।

এছাড়াও শাওয়াল মাস সম্পর্কিত কিছু জানতে চাইলে কমেন্ট করে জানান।

ইসলাম এবং রমজান সম্পর্কিত সকল তথ্য জানটে আমাদের ইসলাম ক্যাটাগরিতে ভিজিট করুন।

সর্বশেষ আপডেট পেতে চোখ রাখুন আমাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ Dainikkantha এ। 

2 thoughts on “শাওয়াল মাসের রোজা রাখার নিয়ম । ছয় রোজা রাখার নিয়ম”

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.