গুগল কিভাবে কাজ করে । গুগলের কাজ কিভাবে হয় ?

আমাদের কোনো তথ্য জানার প্রয়োজন হলেই আমরা গুগলে সার্চ করি। কিন্তু আমরা কি জানি গুগল কিভাবে কাজ করে?

গুগল সার্চ ইঞ্জিন মূলত ধাপে কাজটি করে থাকে। web crawling, web indexing এবং page rank এই টিন ধাপে। 

আজকে আমরা জানবো, গুগল কিভাবে কাজ করে। অর্থাৎ কোনো বিষয়ে সার্চের সাথে সাথে হাজার হাজার সার্চ রেজালত দেয় কিভাবে। চলুন, জেনে নেওয়া যাক, গুগল কিভাবে কাজ করে এবং গুগলের মালিক কে।

গুগল সার্চ ইঞ্জিন কিভাবে কাজ করে

যেকোনো উত্তর খুজতেই গুগল আপনাকে হাজার হাজার উত্তর সামনে এনে দেয়।

কাজটি খুব সহজ মনে হলেও এর পিছনের কাজটা খুবই কঠিন একটি কাজ। 

এর জন্য প্রথমে তিনটি বিষয়ে জানতে হবে। 

১)ওয়েব ক্রলিং – web crawling,

২)ওয়েব ইনডেক্সিং – web indexing, 

৩) পেইজ রেঙ্ক (page rank) এবং সার্চ রেজাল্ট

এবার এই তিনটি বিষয়ে জেনে নেওয়া যাক। ওয়েব ক্রলিং, ওয়েব ইনডেক্সিং এবং পেইজ র‍্যাঙ্ক সম্পর্কে জানতে গুগল কিভাবে কাজ করে সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়তে থাকুন। 

web crawling – ওয়েব ক্রলিং

web crawling এর আরেক নাম web spider। সারা বিশ্বে প্রতি মুহূর্তে অসংখ্য ওয়েবসাইট তৈরি হচ্ছে। এসব ওয়েবসাইটে পাবলিশ হচ্ছে অসংখ্য কন্টেন্ট। একই বিষয়ে কোন কন্টেন্টটি আপনার সার্চ রেজাল্টে দেখাবে তা নিয়ে কাজ করে web spider বা web crawling।

আরও পড়ুনঃ ডোমেইন হোস্টিং কি । ওয়েব হোস্টিং কেন প্রয়োজন

নতুন সাইট তৈরির পর গুগল কনসোলে এন্ট্রি করতে হয়। আপনার ওয়েবসাইট থাকলে তা ভিজিটরদের কাছে ভিজিবল হতে হবে।

এবার ক্রলিং কিভাবে কাজ করে তা জেনে নেই। গুগলের একটি রবোটিক সিস্টেম সফটওয়ার আছে যার নাম গুগল বট। এটি গুগল সার্চ কন্সলে এড থাকা সব ওয়েবসাইটকে প্রতিনিয়ত স্কান বা ক্রলিং করতে থাকে। 

এজন্য গুগল বট রবোটিক সফটওয়ারটি প্রথমে একটি ওয়েবসাইটের লিঙ্কে প্রবেশ করে।

এরপর ওই ওয়েবসাইটে যত link এবং hyperlink আছে আর সবগুলিতে visit করে।

একই সাথে সেই ওয়েবসাইটের সব পেজগুলো ক্রলিং করতে থাকে। 

এইভাবে গুগলে থাকা সব ওয়েবসাইটের link কালেক্ট করে।এর মধ্যে কিছু লিংক রিপিট হলে তা বাদ দিয়ে দেওয়া হয়।

এর দ্বারা বোঝা যায় একটি link মাত্র একবার কালেক্ট করে google boot রবোটিক সফটওয়ার।

ক্রলিং বিষয়টি অনেক্তা পেজ রিফ্রেশের মতো। অর্থাৎ, কিছুক্ষন পর পর সব ওয়েবসাইটে ক্রলিং করে আসে।

ক্রলিং এর মাধ্যমে দেখা হয় ওয়েবসাইটে নতুন কোনো কন্টেন্ট পাবলিশ হইলো কি না আবার কোনো লিংক পরিবর্তন করা হইলো কি না। 

অর্থাৎ, এক কথায় বললে বলা যায়, গুগল ক্রলিং এর মাধ্যমে সঠিক এবং পারফেক্ট লিঙ্কগুলো কালেক্ট করে থাকে। 

এবার  ক্রলিং (web crawling) থেকে প্রাপ্ত লিংক গুলো ইনডেক্সিং করার পালা। এবার ওয়েব ইন্ডেক্সিং ( web indexing) সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক। 

web indexing – ওয়েব ইনডেক্সিং

 Index বা সূচিপত্র। ক্রলিং করে ওয়েব ক্রলিং যে লিংক সংগ্রহ করে সেই লিংক গুলো google boot সাজিয়ে রাখে। আমরা কিছু লিখে সার্চ করার পর গুগল তখন ইনডেক্স হওয়া লিঙ্কের কন্টেন্ট থেকে রিলেটেড কিওয়ার্ড খুঁজে রেজাল্টে শো করে। এইভাবে খুঁজে পাওয়াটাই মূলত সারচিং বলে। 

একটি ওয়েবসাইটের সব কন্টেন্ট পাবলিশ হওয়ার পড়ে গুগল ইনডেক্স হবে তারপরেই গুগলে সার্চ রেজাল্টে শো করবে। 

এবার গুগল পেজ র‍্যাঙ্ক সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

page rank – পেইজ রেঙ্ক

গুগলের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বিষয় পেইজ র‍্যাঙ্ক – page rank সিস্টেম। পেজ র‍্যাঙ্কের মাদ্ধমেই গুগল সার্চ ইঞ্জিন হিসেবে এতটা সাফল্য পেয়েছে। page rank এর মাধ্যমেই গুগল আজ সেরা সার্চ ইঞ্জিন হিসেবে পরিচিত।  

আপনি গুগলে কিছু লিখে সার্চ করলেন। সার্চ রেজাল্টে অসংখ্য কন্টেন্ট লিংক দেখতে পাবেন। এর মধ্যে একদম প্রথমে কিছু লিংক দেখতে পাবেন।

এই লিংক গুলো সেরা র‍্যাঙ্ক করা পেজ। 

আর গুগল সার্চের একদম শেষের দিকে যে লিংকগুলো আসে যাতে আমরা কখনো ক্লিক ই করি না সেই পেজগুলো তুলনামূলক র‍্যাঙ্ক করানো পেজ না। 

এই বিষয়ে একজন ভালো মানের ব্লগার অনেক বেশি ধারণা রাখেন। গুগল তার সংগ্রহ করা লিংক থেকে তথ্য খুঁজে বের করে। এবার কোন লিংকটি সবার আগে শো করাবে? যে লিংকটি র‍্যাঙ্ক করবে সেই লিংকটি সবার আগে শো করাবে। 

র‍্যাঙ্ক বিবেচনা হয় মূলত, কোন কন্টেন্টটিতে খুব ভালোভাবে উত্তর দেওয়া হয়েছে। অনেকবার শেয়ার করা হয়েছে। ভিজিটর অনেক বেশি এসেছে। অনেক সময় ধরে পড়া হবে।

ওই পোস্টটি পড়ার পড়ে ভিজিটর ওই বিষয়ে আর কোনো কন্টেন্ট না পড়লে। 

এছাড়াও আরও ২০০ এর বেশি কারণ আছে লিংক র‍্যান করানোর জন্য। ব্লগাররা এই বিষয়ে সবথেকে বেশি ধারণা রাখে।

এভাবেই মূলত গুগল একটি ওয়েবসাইটের কন্টেন্ট যাচাই বাছাই করে লিংক সরবরাহ করে। এবং ওয়েব ক্রলিং – web crawling, web indexing,page rank এবং সার্চ রেজাল্ট দেখায় এই উপায়ে। 

গুগল সম্পর্কিত FAQS

গুগল কয়টি বিষয়কে প্রাধান্য দিয়ে লিংক র‍্যাঙ্ক করে?

২০০ এর বেশি বিষয়কে প্রাধান্য দিয়ে। তবে খুব বেশি গুরুত্ত দেওয়া হয় কয়েকটি বিষয়কে প্রাধান্য দিয়ে। এই বিষয়গুলি উপরে বলেছি পড়ে জেনে নিন।

কিভাবে গুগল থেকে আয় করতে পারি?

গুগল থেকে আয় করার অন্যতম উপায় হচ্ছে গুগল এডসেন্স।
এটি নিয়ে গুগলে আপনি হাজার হাজার দিকনির্দেশনা মুলক কন্টেন্ট পেয়ে যাবেন। 

গুগলের সিইও কে?

সুন্দর পিচাই গুগলের সিইও। তিনি ভারপ্তের একজন নাগরিক। ২০১৫ সাল থেকে তিনি সিও হিসেবে করমরত আছেন।

গুগলের কাজ সম্পর্কে সর্বশেষ

আজকে আমরা জানতে চেষ্টা করেছি গুগল কিভাবে কাজ করে থাকে সেই বিষয়ে।

গুগল যে ভাবে কন্টেন্ট নিয়ে কাজ করে থাকে আশা করি তা বুঝতে পারছেন। 

এ বিষয়ে আরও কিছু জানার থাকলে কমেন্ট করুন। আমরা আপনার কমেন্তের উত্তরে জানিয়ে দিবো। 

এরকম সব বিষয়ে জানতে নিয়মিত আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করুন।

চোখ রাখুন আমাদের ওয়েবসাইটের অফিসিয়াল ব্লগ ফেসবুক পেজে। 

8 thoughts on “গুগল কিভাবে কাজ করে । গুগলের কাজ কিভাবে হয় ?”

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.